লগ-ইন ¦ নিবন্ধিত হোন
 ইউনিজয়   ফনেটিক   English 
নদী দখলকারীরা যত শক্তিশালী হোক, তাদের ১৩ স্থাপনা উচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সরকার কি আদৌ তা পারবে?
হ্যাঁ না মন্তব্য নেই
------------------------
নিউজটি পড়া হয়েছে ৫৩১ বার
সাংবাদিকদের 'সহযোগিতা' চাইলেন সমাজকল্যাণমন্ত্রী
মৌলভীবাজার, ৪ সেপ্টেম্বরঃ মৌলভীবাজার স্টেডিয়ামে মেয়ের রাজসিক বিয়ে ‘সুষ্ঠুভাবে’ সম্পন্নর জন্য গণমাধ্যমের ‘সহযোগিতা’ চাইলেন সমাজকল্যাণমন্ত্রী সৈয়দ মহসিন আলী।

বুধবার সকালে মৌলভীবাজার সার্কিট হাউসে দ্বিতীয় মেয়ের বিয়েকে সামনে রেখে স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন তিনি।

সম্প্রতি সিলেটে একটি অনুষ্ঠানে গণমাধ্যমকর্মীদের ‘খবিস’ বলে গালি দিয়ে তীব্র সমালোচিত হন সমাজকল্যাণমন্ত্রী। এর আগে-পরে তিনি প্রকাশ্যে ধূমপান ও অনুষ্ঠান মঞ্চে ঘুমিয়ে পড়ার নজির গড়ে আলোচিত হন।

স্টেডিয়াম ও সংলগ্ন পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) রেস্ট হাউস দখল করে সমাজকল্যাণমন্ত্রীর মেয়ের বিয়ের আয়োজন মৌলভীবাজার শহরজুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।

শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পরপর গণমাধ্যমকর্মীদের ডেকে সহযোগিতা চান সৈয়দ মহসিন আলী।

মন্ত্রীর দ্বিতীয় মেয়ে সৈয়দা সানজিদা শারমিনের (সানজু) সঙ্গে লক্ষ্মীপুরের দত্তপাড়ার শ্রীরামপুর গ্রামের ইব্রাহিম পাটওয়ারীর ছেলে মো. মোশাররফ পাটওয়ারীর (আনিক) বিয়ে নিয়েই এত আয়োজন। গ্রামের বাড়ি লক্ষ্মীপুরে হলেও বরের পরিবার বর্তমানে ঢাকার শ্যামলী রোড নম্বর ২-এর ১৫ নম্বর বাসার বাসিন্দা। বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠেয় এই বিয়ে নিয়ে মৌলভীবাজার শহরজুড়ে ব্যাপক আলোচনা চলছে।

এদিকে বুধবার পর্যন্ত রাজসিক এই বিয়ের জন্য সবমিলে স্টেডিয়ামে ছোট-বড় পাঁচটি প্যান্ডেল করা হয়েছে; যাতে  বৃহস্পতিবার বিয়েতে আগত ১৫-১৬ হাজার অতিথিকে আপ্যায়ন করা হবে। অতিথিদের তালিকায় মন্ত্রী-এমপি থেকে শুরু করে বিদেশি কয়েকজন ‘মেহমান’ আসবেন বলেও জানান সৈয়দ মহসিন আলী।

মতবিনিময় সভায় সমাজকল্যাণমন্ত্রী বলেন, আমি এমপি ও মন্ত্রী হওয়ায় এলাকার মানুষের কাছে দায়বদ্ধ। তাই আমার মেয়ের বিয়ের অনুষ্ঠান মৌলভীবাজারে করতে হয়েছে।

ঢাকায় দুই হাজার অতিথিকে দাওয়াত দিয়ে অনেক কম টাকায় বিয়ের অনুষ্ঠান করতে পারতেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, মৌলভীবাজারে এ অনুষ্ঠান আয়োজন করায় ১০/১২ হাজার অতিথিকে নিমন্ত্রণ করতে হয়েছে। এ কারণে বড় পরিসর হিসেবে স্টেডিয়ামকে বেছে নিতে হয়েছে। এতে বেশি টাকা খরচ হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে সমাজকল্যাণমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আতাউর রহমান লোকমান, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনকার আহমদ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আবদুল মতিন প্রমুখ।
সিলেট বিভাগ এর অন্যান্য খবর
Editor: Syed Rahman, Executive Editor: Jashim Uddin, Publisher: Ashraf Hassan
Mailing address: 2768 Danforth Avenue Toronto ON   M4C 1L7, Canada
Telephone: 647 467 5652  Email: editor@banglareporter.com, syedrahman1971@gmail.com