লগ-ইন ¦ নিবন্ধিত হোন
 ইউনিজয়   ফনেটিক   English 
নদী দখলকারীরা যত শক্তিশালী হোক, তাদের ১৩ স্থাপনা উচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সরকার কি আদৌ তা পারবে?
হ্যাঁ না মন্তব্য নেই
------------------------
নিউজটি পড়া হয়েছে ১৫২ বার
সোয়া লাখ একর ভূমি জেগেছে বাংলাদেশি জলসীমায়
বাংলারিপোর্টার.কম
সোমবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৭

বাংলাদেশের জলসীমায় গত ১০ বছরে মোট ১ লাখ ২৫ হাজার একরের বেশি ভূমি জেগে উঠেছে বলে জানিয়েছেন ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ।


সোমবার জাতীয় সংসদে বেগম পিনু খানের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।


মন্ত্রী বলেন, বিগত ১০ বছরে বাংলাদেশি জলসীমায় ২৬টি দ্বীপ জেগে উঠেছে। এসব দ্বীপে ১ লাখ ২৫ হাজার ৩৭০ একর ভূমি পাওয়া গেছে।


তিনি জানান, বঙ্গোপসাগর তথা নোয়াখালী জেলার জলসীমায় ৫টি দ্বীপ জেগে উঠেছে। দ্বীপগুলো হলো- হাতিয়ার ভাষাণচর, স্বর্ণদ্বীপ, চরকবির, চর বন্দনা এবং সুবর্ণচরের রজনীগন্ধা। ওই চরগুলোর মোট ৭৫ হাজার ৮৭৪ একর জমি জেগে উঠেছে।


সন্দীপে দুই দ্বীপ : এছাড়া চট্টগ্রাম জেলাধীন সন্দ্বীপ উপজেলায় ২টি দ্বীপ জেগে উঠেছে- ঠেঙ্গারচর ও জাহাজ্জ্যোর চর। এতে আনুমানিক ১৮ হাজার ৯১২ দশমিক ৯০ একর জমি জেগে উঠেছে। আবার কক্সবাজার জেলার জলসীমায় ১৯টি দ্বীপ জেগে উঠেছে।


ওই চরগুলোতে মোট ৩০ হাজার ৫৮৩ একর খাস জমি রয়েছে। এগুলো হলো-  কক্সবাজারের বাঁকখালী খরাট চর, উখিয়ার জালিয়াপালং চরপাড়া, টেকনাফের জিনজিরাদ্বীপ, মধ্যহ্নীলা, উত্তর হ্নীলা, শাহপরার দ্বীপ। মহেশখালীর মাতারবাড়ি মৌজা, ধলঘাটা, হাঁসের চর, কালারমারছড়া, উত্তরনলবিলা, আমাবশ্যাখালী, কুতুবজোম, সোনাদিয়া, ঘটিভাঙ্গা, সোনারদিয়ার উত্তরে ঘাটিভাঙা মৌজা এবং হামিদরদিয়া। কুতুবদিয়ায় কৈয়ারবিল, বড়ঘোপ এবং নতুন ঘোনা। পেকুয়ায় করিয়ারদিয়া এবং দুবাইঘোনা।


এ দ্বীপগুলো এখনও জনশূন্য এবং দ্বীপগুলো সেনাবাহিনীর হাতে ন্যস্ত করা হয়েছে। মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গাদের সাময়িকভাবে বসবাসের জন্য এসব দ্বীপে সেনাবাহিনী জরিপ করছে বলে জানান  ভূমিমন্ত্রী।যুগান্তর

জাতীয় এর অন্যান্য খবর
Editor: Syed Rahman, Executive Editor: Jashim Uddin, Publisher: Ashraf Hassan
Mailing address: 2768 Danforth Avenue Toronto ON   M4C 1L7, Canada
Telephone: 647 467 5652  Email: editor@banglareporter.com, syedrahman1971@gmail.com