লগ-ইন ¦ নিবন্ধিত হোন
 ইউনিজয়   ফনেটিক   English 
নদী দখলকারীরা যত শক্তিশালী হোক, তাদের ১৩ স্থাপনা উচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সরকার কি আদৌ তা পারবে?
হ্যাঁ না মন্তব্য নেই
------------------------
নিউজটি পড়া হয়েছে ১১৩০ বার
আর্থিক সাহায্যের আবেদন
পলাশবাড়ীর কিডনি রোগে আক্রান্ত ৭ বছরের শিশু মামুন বাঁচতে চায়
২৮-০৪-২০১৪

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার ৭ বছরের অবুঝ ফুটফুটে শিশু মামুন অন্যান্য শিশুদের মতোই এ পৃথিবীতে বাঁচতে চায়। সে কিডনি রোগে আক্রান্ত। হতদরিদ্র পরিবার অর্থের অভাবে চিকিৎসা ব্যয় সংস্থান করতে না পেরে ক্রমান্বয়ে মৃত্যুমুখে ধাবিত হচ্ছে। উপজেলার বেতকাপা ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর গ্রামের বাক-প্রতিবন্ধী ভূমিহীন পিতা আবুল কালামের দ্বিতীয় পুত্র মামুন প্রায় দেড় বছর যাবৎ কিডনি রোগে আক্রান্ত। ইতোমধ্যে তার দু’টি কিডনিই অকেজো হয়ে পড়েছে। ভূমিহীন হতদরিদ্র পিতা অর্থাভাবে তার স্নেহের পুত্র মামুনের উন্নত চিকিৎসা করতে পারছে না। মামুন বর্তমানে তার নিজ গ্রামের বাড়ীতে বিনাচিকিৎসায় দিনের পর দিন মৃত্যুর দিকে ধাবিত হচ্ছে। এদিকে, শিশু মামুনের প্রতিবন্ধী পিতা ও তার মাতা রেজিনা বেগম সমাজের স্বচ্ছল বিবেকবান বিত্তশালী-দানশীল ব্যক্তি ছাড়াও সরকার এবং বেসরকারী ব্যাংক-বীমা ও সংস্থার নিকট তার পুত্রের জীবন বাঁচাতে আর্থিক সাহায্য দানের জন্য বিশেষ অনুরোধ করেছেন। মামুন রংপুর মেডিকেল হাসপাতালের কিডনি বিশেষজ্ঞ ডা. গোলাম আজমের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন রয়েছে। সাহায্য পাঠাবার ঠিকানা জনতা ব্যাংক লিমিটেড, তুলশীঘাট শাখা, গাইবান্ধা (সঞ্চয়ী হিসাব নং-১৩৪১৭)।


ফুলছড়িতে ‘শিখন-শেখানো প্রক্রিয়ার চ্যালেঞ্জ সমূহ
আমাদের করণীয়’ শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত


আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার গজারিয়া শিক্ষা ওয়াচ কমিটি, প্রধান শিক্ষক, এসএমসি সভাপতিদের নিয়ে ‘বিদ্যালয় কেন্দ্রিক শিখন-শেখানো প্রক্রিয়ার চ্যালেঞ্জ সমূহ : আমাদের করণীয়’ শীর্ষক দু’দিনব্যাপী কর্মশালা শুরু হয়েছে।
উদয়ন স্বাবলম্বী সংস্থা ও গণসাক্ষরতা অভিযান’এর যৌথ আয়োজনে এবং ডিএফআইডি বাংলাদেশের সহযোগিতায় সাঘাটার উদয়ন স্বাবলম্বী সংস্থার প্রশিক্ষণ কক্ষে ‘শিখন-শেখানো প্রক্রিয়ার চ্যালেঞ্জ সমূহ : আমাদের করণীয়’ শীর্ষক আবাসিক কর্মশালা ২৭-২৮ এপ্রিল দু’দিনব্যাপী শুরু হয়েছে। গজারিয়া শিক্ষা ওয়াচ কমিটির সভাপতি সাজু মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার এ কে এম আমিনুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন, সহকারি প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আশরাফুল কবির। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন উদয়ন স্বাবলম্বী সংস্থার নির্বাহী পরিচালক শাহাদত হোসেন মন্ডল। বক্তব্য রাখেন, শাহ মো: আ: কাইয়ুম, হাবিবুল আলম, রফিকুদ্দৌলা আলম, সবুজ পাঠান, প্রোগ্রাম ম্যানেজার আ: করিম মন্ডল, আনছারুজ্জামান প্রমূখ। ফুলছড়ি উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়নের ১১টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও শিক্ষা ওয়াচ কমিটির সদস্যরা এ কর্মশালায় অংশগ্রহন করেন।


ফুলছড়িতে ইউপি চেয়ারম্যান আটক ॥ ভ্রাম্যমান
আদালতে মুচলেকা ও জরিমানা


আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার ফুলছড়িতে আটকের পর ভ্রাম্যমান আদালতে মুচলেকা ও জরিমানা দিয়ে মুক্তি পেলেন কঞ্চিপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আবু বকর সিদ্দিক মুন্না ।
জানা গেছে, উপজেলার কঞ্চিপাড়া ইউনিয়নের গ্রামীণ কাঁচা ও পাকা রাস্তা সমূহ মেরামতের জন্য আরইআরএমপি-২ প্রকল্পের আওতায় দুই বছর মেয়াদে ১০ জন দুস্থ কর্মক্ষম মহিলা শ্রমিক নিয়োগের জন্য উপজেলা প্রকৌশলীর দপ্তর থেকে বিজ্ঞপ্তি আহবান করা হয়। প্রথম দফায় গত ২১ এপ্রিল উক্ত মহিলা শ্রমিক নিয়োগের জন্য সংশি¬ষ্ট কর্মকর্তা কঞ্চিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদে গেলে কঞ্চিপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান ও তার পরিষদের সদস্যরা সরকারি বিধি মোতাবেক লটারির মাধ্যমে শ্রমিক নিয়োগের বিরোধীতা করে। এ সময় ইউপি চেয়ারম্যান ও তার লোকজন তাদের মনোনিত ব্যক্তিদের নিতে তোরজোর করলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে শ্রমিক নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত করেন। পরবর্তীতে গত শনিবার আবারো লটারির মাধ্যমে শ্রমিক নিয়োগের জন্য মাইকিংয়ের মাধ্যমে কঞ্চিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদে আগ্রহী প্রার্থীদের ডাকা হলে ৯ টি ওয়ার্ডের কয়েকশ মহিলা শ্রমিক হাজির হয়। পরে ফুলছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান, উপজেলা প্রকৌশলী একেএম আখতারুল আহসান, জেলা নির্বাহী প্রকৌশলীর প্রতিনিধি, ইউপি চেয়ারম্যান আবু বকর সিদ্দিক মুন্না ও সংশি¬ষ্ট ইউপি সদস্যদের উপস্থিতিতে প্রকাশ্য লটারির মাধ্যমে ১০ জন শ্রমিক নিয়োগ করা হয়। নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঘটনাস্থল ত্যাগ করার পর ইউপি চেয়ারম্যান আবু বকর সিদ্দিক মুন্না ও তার লোকজন নিয়ে উপজেলা প্রকৌশলীকে ঘেরাও করে ইউপি চেয়ারম্যানের মনোনিত লোককে নিয়োগের জন্য চাপ প্রয়োগ করে। এতে উপজেলা প্রকৌশলী অস্বীকৃতি জানালে ইউপি চেয়ারম্যান আবু বকর সিদ্দিক মুন্না শ্রমিক নিয়োগের যাবতীয় কাগজপত্র ছিনিয়ে নেয়। উদ্ভুত পরিস্থিতি সামাল দিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা প্রকৌশলী তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি গাইবান্ধা জেলা প্রশাসকসহ সংশি¬ষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানালে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ব্যাপক তৎপর হলে ওইদিন সন্ধ্যায় ইউপি চেয়ারম্যান মুন্না উপজেলা চত্বরে উপস্থিত হলে তাকে আটক করে ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট রাফিউল ইসলাম ও রাহাত মান্নাফ আটক ইউপি চেয়ারম্যান আবু বকর সিদ্দিক মুন্না ভবিষ্যতে এ ধরনের কোন ঘটনা ঘটাবে না বলে ৩‘শ টাকা নন জুডিসিয়াল ষ্ট্যাম্পে মুচলেকা ও ৪‘শ টাকা জরিমানার রায় প্রদান করে। এ সময় ইউপি চেয়ারম্যান মুন্না কান্নায় ভেঙে পড়েন এবং ভ্রাম্যমান আদালতের রায় মেনে নেন।

      

আরিফ উদ্দিন
গাইবান্ধা
মোবাঃ ০১৭৩৭-০০৬৪৩০

মফস্বল সংবাদ এর অন্যান্য খবর
 
Editor: Syed Rahman, Executive Editor: Jashim Uddin, Publisher: Ashraf Hassan
Mailing address: 2768 Danforth Avenue Toronto ON   M4C 1L7, Canada
Telephone: 647 467 5652  Email: editor@banglareporter.com, syedrahman1971@gmail.com